মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৯Dedicate To Right News
Shadow

রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসন থেকে সেলাই মেশিন পেল হিল ই-কমার্স সোসাইটি

Spread the love

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসন থেকে আজ ৮ আগস্ট আনুষ্ঠানিকভাবে তিনটি সেলাই মেশিন পেলো পার্বত্য চট্টগ্রামের সবচেয়ে বড় দেশী ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম হিল ই- কমার্স সোসাইটি। রাঙ্গামাটি জেলার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান হিল এর পরিচালক আশিক সুমন এবং গ্রুপ মডারেটর নিমা চাকমা’র কাছে মেশিনগুলো হস্তান্তর করেন।

উল্লেখ্য এ সময়ে আরও কিছু সংগঠন ও উদ্যোক্তাকে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়।

এ প্রসঙ্গে হিল এর অর্থ সম্পাদক মেহনাজ রহমান লিরা বলেন- “অর্জনগুলো কার কাছে কেমন জানিনা। তবে আমরা এটাকে বিশেষ মর্যাদার সাথে দেখছি। মাত্র এক বছরে একের পর এক বিস্ময়কর সাড়া পাচ্ছি নানানদিক থেকে। আমরা আসলে আমাদের মতো। কেবল ফেসবুকে সীমাবদ্ধ থাকবে না হিল ই-কমার্স সোসাইটি। আমরা একসাথে সকলকে নিয়ে চলার স্বপ্ন দেখি। আজ রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসন এর সাথে একটা সুন্দর যোগাযোগ তৈরি হলো এমন একটি সুন্দর দিনে যার সূত্রপাত হযেছিলো হিলস সম্মেলনে। আমরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি গ্রুপের সকলের প্রতি এবং রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসন এর প্রতি।”

প্রসঙ্গত, হিল ই-কমার্স সোসাইটি এখন পর্যন্ত কারো কাছ থেকে আর্থিক অনুদান না নিয়েই নিজ সংগঠনের পরিচালনা পর্ষদ ও এডমিনদের অর্থায়নে কাজ করে যাচ্ছে। সদস্যদের উপর নেই কোনো বাড়তি চাপ। সম্প্রতি তারা ফ্রি প্রশিক্ষণ কার্যক্রমও শুরু করেছে।

সামগ্রিক বিষয় নিয়ে হিল ই- কমার্স সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা মনি পাহাড়ী বলেন, ” পাহাড় সমতলের মেলবন্ধন এর একটা অদ্ভুত জাযগা হয়ে দাঁড়িয়েছে। দেশী ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম হিসেবে যে গ্রহনযোগ্যতা পেয়েছে হিল তারই ধারাবাহিকতায় একটু একটু করে প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের সাথে সম্পৃক্ত হচ্ছি আমরা। আমাদের মূল শক্তি আমাদের পরিচালনা পর্ষদ, আমাদের এডমিন প্যানেল, মডারেটর এবং গ্রুপ সদস্যবৃন্দ। তারপরও বিচ্ছিন্নভাবে খুব বেশিদূর যাওয়া যায় না বলে মনে করি আমরা। আজ জেলা প্রশাসন বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আমাদের কথা স্মরণে এনেছেন এটা অনেক বড় প্রাপ্তি বলে মনে করি। প্রাপ্ত সেলাইমেশিনগুলো অফিসকপি হিসেবে হিল এর কার্যালয়ে থাকবে। যে কোনো উদ্যোক্তা তার প্রয়োজনে অফিসে এসে সেলাই করার সুযোগ পাবে। এটুকু সুযোগ তৈরি করে দেবার জন্য জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান এবং সাবেক এডিসি জেনারেল মোঃ মামুন এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এ ধারা অব্যাহত থাকবে এমনটা বিশ্বাস।”

উল্লেখ্য, হিল ই-কমার্স সোসাইটি এক বছরের যাত্রায় ৩০ জনের উপরে লাখপতি সেলার তৈরি করেছে। পাহাড়ের ডাকে ছুটে আসছে সমতল আবার সমতলের কাছে ছুটে যাচ্ছে পাহাড়। দেশ ছাড়িয়ে হিল এর মাধ্যমে বিদেশেও পৌঁছে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী নানান সৃষ্টি। হিল এর বিভিন্ন পরিকল্পনা ও তার বাস্তবায়নের শৈল্পিকতায় মুগ্ধ মানুষ। জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনিক সহায়তা পেলে হিল ই-কমার্স সোসাইটি দেশের অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখবে বলে বিশ্বাস সকলের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *