সোমবার, মে ২৭Dedicate To Right News
Shadow

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সবচেয়ে বড় বাংলাদেশী শিল্পীদের চিত্র প্রদর্শনী

Spread the love

পাওয়ারপ্যাক নিবেদিত বাংলাদেশের ৫১তম বিজয় দিবস উপলক্ষে ৫০ জনের বেশি বাংলাদেশী এবং ২০ টি ভিন্ন জাতীয়তার শিল্পীরা গ্রুপ চিত্র প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই ইন্টারন্যাশনাল আর্ট সেন্টারে আসন্ন ১২ থেকে ২১ ডিসেম্বর দীর্ঘ ১০ দিন ফুনুন আর্টস ও মাহফুজ ক্যানভাসের যৌথ উদ্যোগে এই চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

বাংলাদেশের ৫১তম বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে মেগা এই আন্তর্জাতিক চিত্র প্রদর্শনীতে ৮০ জন শিল্পীর ৮০ টি চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হবে। এতে অংশ নিচ্ছেন ৫৭ জন স্ব-শিক্ষিত বাংলাদেশী শিল্পী এবং ২৩ টি ভিন্ন জাতীয়তার চিত্রশিল্পী। যারা তাদের চিত্রকর্মের মাধ্যমে তুলে ধরেছেন যে শিল্পের নির্দিষ্ট কোনো সীমা নেই এবং শিল্পীরা যেকোনো আয়োজনের উদযাপনের অংশ হতে বরাবরই এগিয়ে থাকেন৷ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিচক্ষণ নেতৃত্বে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের এই বিজয় অর্জন করে।

দুবাইয়ে অবস্থানরত বাংলাদেশী কনস্যুলেট-জেনারেল বি.এম. জামাল হোসেন এবং সুপ্রতিষ্ঠিত বিখ্যাত আমিরাতি ব্যবসায়ী ও গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডধারী সুহেল মোহাম্মদ আল জারুনি এই মেগা আর্ট ইভেন্টের উদ্বোধন করবেন। ইভেন্টির টাইটেল স্পন্সর পাওয়ারপ্যাক (সিকদার গ্রুপের একটি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান) বাংলাদেশের অন্যতম বৃহত্তম ব্যবসায়িক সংগঠন এবং বিশ্বজুড়ে সত্তরটিরও বেশি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। পাওয়ারপ্যাকের চেয়ারম্যান রিক হক সিকদার এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক রন হক সিকদার বলেন, বাংলাদেশের বিজয়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এটি একটি মর্যাদাপূর্ণ ইভেন্ট এবং শিল্পীদের চিত্রকর্মের মাধ্যমে বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে তুলে ধরে এমন বড় আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা জাতির জন্য গর্বের বিষয়। তিনি আরো জানান শিল্পীদের সৃষ্টিকে একটি আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্ম প্রদান এবং তাদের শিল্পকর্মের মাধ্যমে বাংলাদেশের সংস্কৃতি ও ইতিহাসকে বিশ্বব্যাপি তুলে ধরার জন্য উত্সাহিত করতে প্রদর্শনীটির সাথে যুক্ত হয়েছেন।

মাহফুজ ক্যানভাসের বিদেশের মাটিতে প্রথম বৃহত্তম চিত্র প্রদর্শনী হতে যাচ্ছে ‘বিজয়’ শো, যেখানে বাংলাদেশীদের পাশাপাশি আর জাতীয়তার চিত্র শিল্পীরও থাকবেন। মাহফুজ ক্যানভাসের প্রতিষ্ঠাতা মাহফুজর রহমান বলেছেন, এখন পর্যন্ত তাদের এই প্রচেষ্টাকে সবচেয়ে বড় আন্তর্জাতিক অর্জন হিসাবে দেখেন এবং এটি এখন পর্যন্ত স্ব-শিক্ষিত বাংলাদেশী শিল্পীদের সবচেয়ে বড় আন্তর্জাতিক শিল্প প্রদর্শনী। তিনি কনস্যুলেট জেনারেল বি.এম. জামাল হোসেন এবং এই ইভেন্টের টাইটেল স্পন্সর পাওয়ারপ্যাককে ইভেন্টে তাদের সহায়তার জন্য আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছেন৷ ফুনুন আর্টস গ্রুপ, সংযুক্ত আরব আমিরাতের অন্যতম বৃহৎ চিত্রকলার প্ল্যাটফর্ম। এর প্রতিষ্ঠাতা শিবা খান এবং ফারাহ খান বলেছেন যে এটি দুবাইতে বাংলাদেশী শিল্পীদের সবচেয়ে বড় আন্তর্জাতিক চিত্র প্রদর্শনী এবং এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা তাদের জন্য গর্বের বিষয়। মিসেস শিবা এবং ফারাহ আরও বলেন, আমাদের লক্ষ্য হল শিল্পের প্রতিনিধিত্ব করা এবং প্রতিভাকে আরো সামনে নিয়ে আসা। এখানে শিল্পীদেরও তাদের চিত্রকর্মের মাধ্যমে নিজস্বতাকে উপস্থাপন করার সম্পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়ে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *