সোমবার, জুন ২৪Dedicate To Right News
Shadow

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘স্মার্ট বাংলাদেশের উন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূমিকা’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা

Spread the love

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. সৌমিত্র শেখর বলেছেন, ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়বার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ডাক দিয়েছেন। আর সে লক্ষ্য নিয়ে প্রথমে ডিজিটাল বাংলাদেশ তারপরে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়বার অভিযাত্রা শুরু হয়েছে। আর সে অভিযাত্রায় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে যুক্ত হতে হবে।
সোমবার (৩ জুন) সকালে প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স কক্ষে ‘স্মার্ট বাংলাদেশের উন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূমিকা’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আইকিউএসি আয়োজিত কর্মশালায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পর্যায়ে কর্মরত শিক্ষক ও কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।
তিনি আরো বলেন, আমরা একটা উন্নত বাংলাদেশ দেখতে চাই। এ উন্নত বাংলাদেশ তৈরিতে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কী করণীয় সেটি আমাদের দেখতে হবে। আমরা কতটুকু অংশগ্রহণ করতে চাই সেটি আমাদের মূললক্ষ্য। আমরা যদি স্মার্ট বাংলাদেশের সাথে তাল মেলাতে না পারি তাহলে আমরা পিছিয়ে পড়ব।
প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজনের সঙ্গে যুক্তদের ধন্যবাদ জানিয়ে ভবিষ্যতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের স্মার্ট হিসেবে দক্ষ করে গড়ে তুলতে এই ধরনের প্রশিক্ষণ আরো বেশি আয়োজন করা হবে বলে উপাচার্য জানান।
ইনোভেশন অ্যাকশন প্লান কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মোসাম্মৎ জান্নাতুল ফেরদৌসের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অধিবেশনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন ট্রেজারার প্রফেসর ড. আতাউর রহমান, স্বাগত বক্তব্য দেন রেজিস্ট্রার কৃষিবিদ ড. মো. হুমায়ুন কবীর। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন আইকিউএসসি পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) প্রফেসর ড. তুষার কান্তি সাহা। সম্পদব্যক্তি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জাহিদুর রহমান। ইনোভেশন অ্যাকশন প্লান কমিটির ফোকাল পয়েন্ট মোহসিনা সুলতানা অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।
অনুষ্ঠানে ইনোভেশন অ্যাকশন প্লান কমিটি কর্তৃক আয়োজিত ইনোভেমন শোকেসিং কর্মসূচির বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার ও সনদ তুলে দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *