শনিবার, জুন ২২Dedicate To Right News
Shadow

সাতক্ষীরার দেবহাটায় ভূমি দস্যুদের দৌরাত্ব

Spread the love

সাতক্ষীরা জেলার দেবহাটা উপজেলায় ভূমি দস্যুদের দৌরাত্বে স্থানীয় বাসিন্দারা চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন। এ ব্যাপারে দেবহাটা পুলিশ প্রশাসনের নিরবতা এলাকাবাসীর মনে উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে।

জানা যায়, দেবহাটা উপজেলার পারুলিয়া মৌজার খলিশাখালী ঘেরে প্রায় ১২০০ বিঘা ব্যক্তি মালিকানাধীন জমিতে ভূমিদস্যুদের লোলুপ দৃষ্টি পড়েছে। ভূমিদস্যুরা জোর করে এসব জমিতে থাকা মাছের ঘের থেকে মাছ নিয়ে যাচ্ছে। হুমকি-ধামকি দিয়ে এসব জমিতে বসবাসরত বাসিন্দাদেরকে তাদের নিজ ভূমি থেকে বিতারিত করছে। গত ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ গভীর রাতে এই সব ভূমি সন্ত্রাসীরা মাছের ঘেরে লুটপাট করে ও ঘের মালিকদের মারধর করে।

এ ব্যাপারে দেবহাটা থানায় মামলা করতে গেলে অজ্ঞাত কারণে পুলিশ কোন মামলা নেয়নি। পরবর্তীতে দেবহাটা বিজ্ঞ আমলী আদালত নং-৭ এ পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলার অভিযোগকারীরা হলেন মো. আনছার আলী ও মো. আতিকুর রহমান। মামলা দুটির আসামী করা হয়েছে- মো. রাজু হোসেন, মো. রিপন হোসেন, মো. রবিউল ইসলাম, মো. তুকাম গাজী, মো. আনারুল ইসলাম, মো. সাইফুল ইসলাম, গোলাপ ঢালী, মো. বাবলু, নূর আলী, আকরাম আলী, আরিফুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম বাটু, আব্দুর রাজ্জাক, সামাদ হাওলাদার, সুনিল স্বর্ণকার, তালেব বদ্দি, জমাত আলী সহ অজ্ঞাতনামা আরো ৬/৭ জনকে।

উল্লেখ্য, ১২০০ বিঘা জমি ভূমির মালিক আনুমানিক ৩০০ জন ব্যক্তির নামে সিএস রেকর্ড থেকে শুরু করে এসএ রেকর্ড পর্যন্ত হস্তান্তর সূত্রে এবং বর্তমান আরএস রেকর্ড দ্বারা স্বীকৃত।

দেবহাটা উপজেলা চেয়ারম্যান মজিবর রহমান গত ১২ সেপ্টেম্বর দেবহাটা আইন শৃঙ্খলা মিটিংয়ে ভূমি দস্যুদের দৌরাত্ব নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন ও এ ব্যাপারে যথাযথ সমাধানের জন্য জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *