সোমবার, অক্টোবর ৩Dedicate To Right News
Shadow

মুখ ও মুখোশ ছবির মূল স্ক্রিপ্ট, দূর্লভ স্থিরচিত্র ও পিয়ানো যন্ত্র ফিল্ম আর্কাইভ হস্তান্তর

Spread the love

বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভে হস্তান্তর করা হলো ১৯৫৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত আব্দুল জব্বার খান পরিচালিত এই দেশের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য সর্বাক চলচ্চিত্র মুখ ও মুখোশের দূর্লভ দ্রব্যাদি। এ ছবির অন্যতম প্রযোজক ছিলেন জনাব নুরুজ্জামান। প্রযোজক নুরুজ্জামানের কন্যা ডা. জেসমিন জামান মুখ ও মুখোশ চলচ্চিত্রের মূল স্ক্রিপ্ট, দূর্লভ স্থিরচিত্র ও পিয়ানো যন্ত্রটি বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের মহাপরিচালক মো. নিজামূল কবীরের কাছে হস্তান্তর করেন। এই সময় উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ফারুক আহমেদ, বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের পরিচালক ড. মো. মোফাকখারুল ইকবাল সহ আরো অনেক কর্মকর্তাবৃন্দ।

আমাদের চলচ্চিত্রের ইতিহাস ঐতিহ্যের অংশ মুখ ও মুখোশ চলচ্চিত্রের মূল স্ক্রিপ্টটি ছবির মুক্তির পর পরিচালক আব্দুল জব্বার খান নুরুজ্জামানকে দিয়ে দেন। এছাড়াও জনাব নুরুজ্জামানের কাছে মুখ ও মুখোশ ছবির মহরতের দূর্লভ স্থিরচিত্র ও ছবিতে সমর দাসের সুর করা পিয়ানো যন্ত্রটিও ছিলো। পিয়ানোটি নুরুজ্জামান ক্রয় করেন নারায়গঞ্জের ঢাকেশ্বরী কটন মিলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ব্রিটিশ নাগরিকের কাছ থেকে। পিয়ানোটি লন্ডনের J&J হপকিন্স কোম্পানী মডেল নং- ৪৪৮৯৭, ১৮৮১ থেকে ১৮৯০ সালের মধ্যে তৈরী।

নুরুজ্জামান একজন সঙ্গীত অনুরাগী ছিলেন এবং পিয়ানোটি নিজেই বাজাতেন। পেশায় ছিলেন তিনি একজন ইঞ্জিনিয়ার ও কন্ট্রাক্টর। ১৯৭৫ সালের ২৮ ডিসেম্বর নুরুজ্জামানের ইন্তেকালের পর তাঁর এই দূর্লভ জিনিস গুলো তাঁর স্ত্রী ও একমাত্র কন্যা আমেরিকা প্রবাসী ডা. জেসমিন জামান সিদ্ধেশ্বরীর বাড়িতে সংরক্ষণ করে রাখেন।

মুখ ও মুখোশ চলচ্চিত্রের প্রযোজক নুরুজ্জামানের কন্যা ডা. জেসমিন জামান জানান, মুখ ও মুখোশ চলচ্চিত্রের এই দূর্লভ জিনিস গুলো এতোদিন আমাদের কাছে ছিলো, আজ বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভে হস্তান্তর করায় ফিল্ম মিউজিয়ামে সংরক্ষিত থাকবে এবং দেশের মানুষ জানতে ও দেখতে পারবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.