মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৬Dedicate To Right News
Shadow

মিরপুর ডিওএইচএস কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

Spread the love

মিরপুর ডিও এইচ এস এর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের উদ্যোগে ছোট শিশু কিশোরদের সঠিকভাবে নামাজ আদায়, ইসলামী মূল্যবোধ, ধর্মীয় আচার আচরণ, নিয়মানুবর্তিতা এবং দ্বীনি শিক্ষার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে এক টানা ৪০ দিন নামাজ পড়ার সম্প্রতি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নেওয়া হয়। এই উদ্যোগে স্বত স্ফুর্তভাবে মিরপুর ডিওএইচএস এর প্রায় ৩৫২ জন এর ও বেশি শিশু-কিশোর নিবন্ধন করেছিল এর মধ্যে ২৩০ জন শিশু-কিশোর ঠিক ভাবে টানা ৪০ দিন মসজিদে এসে নামাজ আদায় করতে সক্ষম হয় এবং সর্ব নিম্ন ৩০ ওয়াক্ত নামাজ যারা আদায় করেছে তাদেরকে স্মার্ট ওয়াচ দেওয়া হয়। এই উদ্যোগে মিরপুর ডিওএইচএস এর ৪ বছরের শিশু থেকে ১৬ বছরের কিশোরেরা ও অংশ নেয়।

গত বছরের ন্যায় এই বছরেও মিরপুর ডিওএইচএস এর এই উদ্যোগ সফলতার সাথে সম্পন্ন হয়। গত বছর ৯৩ জন শিশু-কিশোর টানা ৪০ দিন নামাজ আদায় করায় তাদেরকে বাই সাইকেল উপহার দেওয়া হয়েছিল এবার সেই সংখ্যাটি বেড়ে প্রায় তিন গুন। এক মাসের ও বেশি সময়ের এই সাফল্যের সবচেয়ে বেশি সহযোগতা ছিল অভিবাবকদের বাবার সাথে মসজিদে আসা মায়ের বাচ্চাকে মসজিদে আসার জন্য প্রস্তুত করে দেয়া এবং পুরো এই উদ্যোগকে মসজিদ কমিটির সাথে মনিটরিং করা।

এ প্রসঙ্গে মিরপুর ডিওএইচএস এর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব, হাফেজ মাওলানা মোশাররফ হোসেন বলেন, ”এই উদ্যোগ সফল করতে সবচেয়ে বেশি কষ্ট করেছেন অভিভাবকরা তারা বাচ্চাদের যে ভাবে প্রস্তুত করে মসজিদে আসতে সহযোগীতা করেছেনা তা সত্যিই প্রশংসনীয় এবং আমি আশাবাদি যে বিগত দিন গুলোর ন্যায় বাচ্চারা সামনের দিনগুলোতেও মসজিদে আসবে”।

অভিভাবক হিসেবে জনাব মামুনুর রশিদ বলেন, “মিরপুর ডিওএইচএস এর মসজিদ কমিটির এই উদ্যোগ অনেক প্রশংসনীয় এভাবে আমাদের দেশের পতিটি মসজিদ কমিটির বাচ্চাদের মসজিদ মুখী করার উদ্যোগ নেওয়া উচিত এবং এভাবে আমাদের সন্তান মসজিদে আসার ফলে অনেক দ্বীনি বিষয় ঠিক ভাবে শিখতে পেরেছে”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *