মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ৭Dedicate To Right News
Shadow

“হিল রিবেং থিয়েটার” এর ৩য় বর্ষপূর্তি

Spread the love

২৭ নভেম্বর ছিল “হিল রিবেং থিয়েটার ” এর ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ২০১৯ থেকে যাত্রা শুরু করে পুরোটা সময় নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি জনপদের রঙ,ঐতিহ্য, সংস্কৃতি,নাট্য, মানুষের জীবনকে তুলে ধরার, দেশ তথা সারাবিশ্বে এই সুর ছড়িয়ে দেয়ার জন্য! গত ৩ বছরে ‘হিল রিবেং থিয়েটার’ রাঙ্গামাটির বিভিন্ন উপজেলা সহ চট্টগ্রাম ঢাকায় নাটক মঞ্চায়ন করেছে। দলের প্রথম প্রযোজনা চাকমা লোককাহিনী অবলম্বনে ‘গঙ্গা মা’ নাটকটি গঙ্গা-যমুনা উৎসবে মঞ্চস্থ করে। বাংলাদেশ টেলিভিশনের চট্টগ্রাম কেন্দ্র থেকেও নাটকটি প্রচারিত হয়। এছাড়াও এই তিন বছরে একটি পথনাটক (শেয়ালমানুষ) ও পরীক্ষামূলক প্রযোজনা তামাজা মঞ্চস্থ হয়। তিনটি নাটকের অনেকগুলো মঞ্চায়ন হয়েছে এবং এখনও তা চলমান আছে। নাটক তিনটির রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন আশিক সুমন। এবং প্রযোজনা অধিকর্তা রুনেল চাকমা। ২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর এক উৎসব মূখর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে রাঙ্গামাটি তথা পার্বত্য চট্টগ্রামে হিল রিবেং থিয়েটার এক ঝাঁক সৃষ্টিশীল ও প্রতিশ্রুতিশীল নাট্যকর্মীদের নিয়ে থিয়েটারটি গঠিত হয়। সেই অনুষ্ঠানে দলের প্রথম প্রযোজনা ‘গঙ্গা মা’ মঞ্চস্থ হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন মঞ্চ- টিভি-সিনেমা ব্যক্তিত্ব জনাব ঝুনা চৌধুরী এবং সংগঠক ও পথনাটক পরিষদের সম্মানিত সভাপতি জনাব মিজানুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন গতি থিয়েটার ঢাকা এর সভাপতি নাট্যজন মনি পাহাড়ীসহ আরও নাট্যজনেরা।

হিল রিবেং থিয়েটার এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী-তে সকল দর্শক, পৃষ্ঠপোষক, শুভাকাঙ্ক্ষী, সাংবাদিক, অভিভাবক সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা আর অভিনন্দন জানিয়েছেন দলটির প্রধান নির্বাহী রুনেল চাকমা।

উল্লেখ্য এই তিন বছরে হিল রিবেং থিয়েটার ‘গঙ্গা মা’, শেয়ালমানুষ (পথনাটক), এবং পরীক্ষামূলক প্রযোজনা ‘তামাজা’ মঞ্চে এনেছে।

দলের অন্যতম নির্বাহী নাট্যকার নির্দেশক আশিক সুমন বলেন- “.দেখতে দেখতে কেটে গেল পুরো তিনটি বছর! মহাকালের তুলনায় তিনটি বছর হয়তো কিছুই নয়! কিন্তু আমাদের মনুষ্য জীবনে, একজন শিল্পীর জীবনে এই তিনটি বছরই যেন মহাকাল হয়ে দাঁড়িয়ে আছে! সৃষ্টিতে,উদ্যমে,সংকটে বিগত বছরগুলো জুড়ে আমরা ছিলাম সচেষ্ট শিল্পে আর মানবিকতায়!”

খুব শীঘ্রই মঞ্চে আসছে হিল রিবেং থিয়েটার এর নতুন প্রযোজনা-‘ নীলাগ্নি’। পূর্বের মতো দর্শক ভালোবাসায় এ নাটকটিও সিক্ত হবে বলে বিশ্বাস নাট্য সংগঠনটির।

পাহাড়ের নাট্যচর্চাকে বেগবান করতে গত তিনবছরে যে অবদান রেখে আসছে হিল রিবেং থিয়েটার তা ইতোমধ্যে দেশব্যাপী আলোড়ন তৈরি করেছে। এই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে তারা নতুন নতুন সৃজনে নাট্যাঙ্গনকে সমৃদ্ধ করবে বলে আশাবাদী বিশিষ্টজনেরা। তিন বছরে হিল রিবেং থিয়েটার এর যে আবেদন তৈরি হয়েছে সেটা অক্ষণ্ন রেখে সামনের দিনগুলোতে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে আরও বিস্তৃত হবে এমনটাই প্রত্যাশা সকলের ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *