শনিবার, জুন ২২Dedicate To Right News
Shadow

স্টার সিনেপ্লেক্সে দুই ছবি

Spread the love

গত ৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পাশাপাশি বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পেয়েছে সায়েন্স ফিকশন ডিজাস্টার ঘরানার ছবি ‘মুনফল’। রোনাল্ড এমরিখ পরিচালিত অগণিত দর্শকের কাঙ্খিত এ ছবিটি ঢাকায় স্টার সিনেপ্লেক্সের সবগুলো শাখায় প্রদর্শিত হচ্ছে। হ্যালি বেরি, প্যাট্রিক উইলসন ও জন ব্রাডলিসহ আরও অনেকে রয়েছেন এ ছবিতে।

পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ চাঁদ, যা লক্ষকোটি বছর ধরে নির্দিষ্ট দূরত্বে এর চারদিকে ঘুরছে। সৃষ্টির শুরুতে চাঁদ পৃথিবীর আরও কাছে ছিল। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এখন থেকে প্রায় ৬০ কোটি বছর পরে চাঁদ পৃথিবীর কক্ষপথে ঘুরবে না। চাঁদ তখন পৃথিবীর কাছে একটি দূরের তারা হয়ে থাকবে। খালি চোখে চাঁদের সৌন্দর্য আর দেখাই হয়তো যাবে না। পৃথিবী থেকে অনেক দূরের কোনো কক্ষপথে ঘুরবে। মানব সভ্যতা টিকে থাকলেও দেখবে না সূর্যগ্রহণ কিংবা জোয়ার ভাটা। সূর্যের আলোয় বাঁধা দেবে না চাঁদ। পৃথিবীকে দিতে পারবে না ছায়াও। সমুদ্রের পানি বাষ্প হয়ে যাবে তত দিনে, পৃথিবী উষ্ণ হবে অনেক বেশি। শত কোটি বছর পরে, সূর্য চাঁদকে কক্ষপথ থেকে পুরোই বিচ্যুত করে দেবে। পৃথিবীর পরিণতিও হবে ভয়াবহ। পুরো বিশ্বে ঘটতে পারে আরও বড় বড় ভূমিকম্প। পরিবেশের জন্য যা বয়ে আনতে পারে মহাবিপর্যয়। এমনকি ধ্বংস হয়ে যেতে পারে পৃথিবী। বিজ্ঞানীদের এমন পূর্বাভাস রেখাপাত করেছে হলিউডের খ্যাতিমান পরিচালক রোনাল্ড এমরিখের মনে। তাই হয়তো বিষয়টিকে সেলুলয়েডের পর্দায় আনতে চেয়েছেন তিনি।

বরাবরই পৃথিবীর বিপর্যয় নিয়ে ছবির কথা বললে রোনাল্ড এমরিখের নাম সামনে চলে আসে। ‘ইনডিপেনডেন্স ডে’, ‘দ্য ডে আফটার টুমরো’ ‘২০১২’ একের পর এক সায়েন্স ফিকশন আর পৃথিবীর বিপর্যয় নিয়ে ছবি নির্মাণে সাফল্যের স্বাক্ষর রেখেছেন এই নির্মাতা। এবার তিনি নিয়ে এসেছেন ‘মুনফল’। ২০১৬ সালে ‘ইনডিপেনডেন্স ডে: রিসারজেন্স’-এর পরে ‘মুনফল’ তৈরিতে তিনি সময় নিলেন পাঁচ বছর। বেশ কয়েক বছর ধরেই ছবিটি নিয়ে কাজ করছেন ৬৬ বছর বয়সী এই নির্মাতা। প্রথমে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ইউনিভার্সেলের কাছে ছবির প্রাথমিক ধারণা বিক্রি করে দিয়েছিলেন এমরিখ। পরে তিনি আবার তাঁর স্বত্ব নিয়ে নেন। এবার ছবিতে প্রচুর অর্থ লগ্নির জন্য চেষ্টা করেন। প্রকল্পটি নিয়ে আসেন কান চলচ্চিত্র উৎসবে। সেখান থেকে তিনি প্রচুর তহবিলও সংগ্রহ করেন। যেন ছবিটি স্বাধীনভাবে নির্মাণ করা যায়। করোনা মহামারীর মধ্যেও অবশেষে ছবিটি পর্দায় আনতে পেরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন এমরিখ। হলিউড রিপোর্টারকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘এ ধরণের ছবি নির্মাণ রীতিমত চ্যালেঞ্জিং। তাই সময় নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করেছি। কোভিডের মধ্যে কাজ চালিয়ে যাওয়া কঠিন ছিলো। শেষ পর্যন্ত ছবিটি দর্শকদের সামনে আসছে এটা আনন্দের।’

চাঁদ তার কক্ষপথ থেকে সরে এসেছে। ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে। এই বিপর্যয় থেকে উদ্ধারের পথ কী? একজন সাবেক মহাকাশচারী, একজন নাসা বিজ্ঞানী ও একজন ষড়যন্ত্র তাত্ত্বিক পৃথিবীকে এই বিপর্যয় থেকে বাঁচাতে মিশনে নামেন। এই মিশন কতখানি সফল হয় সেটা দেখতে হলে যেতে হবে স্টার সিনেপ্লেক্সে।

অপর দিকে বাংলাদেশ ও কলকাতায় একইদিনে মুক্তি পেল আলোচিত সিনেমা ‘কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন’। গত ৪ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাওয়া ছবিটি বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে চলছে। এছাড়া রাজধানীর ব্লকবাস্টার সিনেমা এবং চট্টগ্রামের সিলভারস্ক্রিনেও প্রদর্শিত হচ্ছে। সাফটা চুক্তির আওতায় সিনেমাটি দেশে আমদানি করেছে শো মোশন লিমিটেড। এ প্রসঙ্গে স্টার সিনেপ্লেক্সের জ্যেষ্ঠ বিপণন কর্মকর্তা মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘সিনেমাটি আমরা সাফটা চুক্তির আওতায় দেশে আমদানি করেছি। শো মোশন লিমিটেড প্রযোজিত ‘ন ডরাই’ সিনেমার বিপরীতে ভারতের ‘কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন’ আনা হয়েছে’। আগামীতে এভাবে আরও ছবি আসবে বলেও জানান তিনি।

সৃজিত মুখার্জি পরিচালিত ‘কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন’ ছবিটি মূলত অ্যাডভেঞ্চার ঘরানার। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের লেখা ‘জঙ্গলের মধ্যে এক হোটেল’ অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে এটি। রোমাঞ্চ আর টানটান উত্তেজনায় ভরপুর গল্প নিয়ে এ ছবিতে কাকাবাবু প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জি এবং সঙ্গে সন্তু চরিত্রে আরিয়ান ভৌমিক। একটি গুরুত্ব চরিত্রে আছেন ‘একেন বাবু’খ্যাত অনিবার্ণ চক্রবর্তী। পরিচালক সৃজিত নিজেও অভিনয় করেছেন। ‘কাকাবাবু’ সিরিজের তৃতীয় ছবি এটি। এর আগে প্রেক্ষাপট ছিল মিশর ও পাহাড়। এবার প্রথম জঙ্গলের রোমাঞ্চ পর্দায় উপভোগ করবেন এই ফ্র্যাঞ্চাইজির ভক্তরা। আফ্রিকার জঙ্গলে একের পর এক পর্যটক নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার রহস্যভেদ করবেন ‘কাকাবাবু’। কেনিয়ার দ্য গ্রেট মাসাইমারা রিজার্ভ ফরেস্টে ভেতরে এবার তাদের অভিযান। রহস্যভেদ করতে গিয়ে নানা রকম বিপদে পড়তে হয় তাদের। কাকাবাবু সিরিজের আগের দু’টি ছবি দর্শকমহলে বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছিল। কাজেই এবার তৃতীয় ফ্র্যাঞ্চাইজির ক্ষেত্রেও একইরকম আশাবাদী পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। কাকাবাবু এর আগে মিশর ও পাহাড়ে গিয়েছেন। তবে এই প্রথমবার জঙ্গলে যাচ্ছেন। বড় পর্দায় সেই রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা পেতে এখন থেকেই যে দর্শকরা মুখিয়ে থাকবেন, তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না।

ছবির ট্রেলার দেখে স্বয়ং বলিউডের শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে বিশেষ বার্তাও দিয়েছেন তিনি। টুইটারে ছবির ট্রেলার শেয়ার করে বিগ বি লিখেছেন, ‘প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, বুম্বা, সকল শুভকামনা। ৪ ফেব্র“য়ারি সরস্বতী পুজোয় মুক্তি পাচ্ছে ওঁর ছবি কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন, যাঁর পরিচালনায় জাতীয় পুরস্কারজয়ী সৃজিত মুখার্জি।’ অমিতাভ বচ্চনের শুভেচ্ছাবার্তা পেয়ে উচ্ছ্বসিত গোটা টিম। বিগ বি-র টুইটটি রি টুইট করেছেন প্রসেনজিৎ, সৃজিত এবং প্রযোজনা সংস্থা এসভিএফ। বাংলাদেশে ছবিটি মুক্তির খবর জানিয়ে নিজ নিজ আইডি থেকে পোস্ট করেছেন প্রসেনজিৎ এবং সৃজিত মুখার্জি। দু’জনেই হলে গিয়ে ছবিটি উপভোগ করার জন্য দর্শকদের আহ্বান করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *