বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮Dedicate To Right News
Shadow

এয়ারক্রাফট মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার সুযোগ দিচ্ছে ইউএস-বাংলা

Spread the love

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে এয়ারক্রাফট মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার তৈরীর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এ লক্ষ্যে দেশের বাইরে দুই বছর মেয়াদী ইএএসএ পার্ট ১৪৭ ট্রেনিং কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

যে সকল মেধাবী শিক্ষার্থী বিজ্ঞান বিভাগে গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়নে নূন্যতম জিপিএ-৪.৫সহ এসএসসি ও এইচএসসি উত্তীর্ণ অথবা ‘ও’ লেভেলে গনিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়নে নূন্যতম ৫ বিষয়ে গ্রেড-এ এবং ‘এ’ লেভেলে নূন্যতম ২ বিষয়ে গ্রেড-বি পেয়েছেন যার মধ্যে গনিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়ন রয়েছে, তারা আবেদনের যোগ্য হবেন। আবেদনকারীকে ইংরেজীতে দক্ষ হতে হবে।

আবেদনকারীকে অবশ্যই বাংলাদেশী হতে হবে এবং অন্য কোনো দেশের বাসিন্দা হতে পারবে না। আবেদনের সময় বয়স সর্বোচ্চ ২২ বছর ও উচ্চতা- নূন্যতম ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি হতে হবে। শারীরিক ওজন বিএমআই চার্ট অনুপাতে হতে হবে। দৃষ্টিশক্তি ৬/৬ হতে হবে। অধুমপায়ী ও নন-অ্যালকোহলিক হতে হবে। কোনো ধরনের অপরাধের সাথে সম্পৃক্ততা, অযোগ্যতা হিসেবে বিবেচিত হবে। অবশ্যই অবিবাহিত হতে হবে।

এয়ারক্রাফট মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ারদের নির্বাচন প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছে আইকিউ টেস্ট, লিখিত পরীক্ষা (ইংরেজী, গনিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়ন), যোগ্যতা পরীক্ষা, সাইকোমেট্রিক, মেডিকেল ও মৌখিক পরীক্ষা। সকল টেস্টে উত্তীর্ণদের মধ্য থেকে নির্বাচিতদের ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও আর্থিক সহযোগিতায় দেশের বাইরে নির্ধারিত এয়ারক্রাফট মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ারিং ট্রেনিংয়ের জন্য পাঠানো হবে। দুই বছর মেয়াদী প্রশিক্ষণ সাফল্যের সাথে সম্পন্নের পর উত্তীর্ণ ইঞ্জিনিয়ারগণ ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সে টাইপ রেটেড ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে যোগদান করতে পারবেন।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সে ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে যোগদানের পর মাসিক বেতন শুরু ২০০,০০০ টাকা (দুই লক্ষ টাকা) ও কোম্পানির অন্যান্য সুযোগ সুবিধা থাকবে, যার মধ্যে দুইটি ফেস্টিভাল এলাউন্স, প্রভিডেন্ট ফান্ড, মেডিক্যাল ইন্স্যূরেন্স, প্রফিট বোনাস, বিনা ভাড়ায় ইউএস-বাংলার বিভিন্ন রুটে ভ্রমণ সুবিধা।

এয়ারক্রাফট মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার প্রোগ্রামে অনলাইনে আবেদন করা যাবে https://tame.usbair.com এ ঠিকানায়। আবেদনের শেষ তারিখ ২৪ জুন ২০২৩। যে কোন ধরণের তদবির প্রার্থীর অযোগ্যতা হিসেবে বিবেচিত হবে। অসম্পূর্ণ আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *