মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৬Dedicate To Right News
Shadow

বার্বি’র প্রিমিয়ারে বাংলাদেশী অভিনেতা!

Spread the love

আগামী ২১ জুলাই বিশ্বব্যাপী মহাসমারোহে মুক্তি পেতে চলেছে বহুলকাঙ্খিত চলচ্চিত্র ‘বার্বি’। ২০২২ সালের এপ্রিলে টুইটারে প্রথম লুক এবং এর মুক্তির তারিখ উন্মোচন করার পর থেকেই সিনেমাটি ঘিরে দর্শকদের উন্মাদনা চলছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমও মেতে আছে এই ছবি নিয়ে। মাতামাতিতে পিছিয়ে নেই বাংলাদেশের দর্শকরাও। আন্তর্জাতিক মুক্তির দিনেই বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাবে ছবিটি-এই আনন্দের খবরের পাশাপাশি আরও বড় আনন্দ যোগ করেছে আরেকটি বিষয়, সেটি হলো বার্বি সিনেমায় অভিনয় করেছেন একজন বাংলাদেশী অভিনেতা। আরও বড় চমক হলো, ২০ জুলাই সন্ধ্যায় স্টার সিনেপ্লেক্সের মহাখালীস্থ এসকেএস টাওয়ার শাখায় জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে ছবিটির প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে উপস্থিত থাকবেন সেই অভিনেতা। দেশের ইতিহাসে কোন হলিউডি ছবির প্রিমিয়ারে স্বয়ং অভিনেতা উপস্থিত থাকার ঘটনা এটাই প্রথম।

এ প্রসঙ্গে স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল বলেন, ‘বার্বি’র মত আলোচিত একটি ছবিতে বাংলাদেশের একজন অভিনয় করেছেন-এটা নিঃসন্দেহে আমাদের জন্য গর্বের বিষয়। বার্বি’র প্রিমিয়ারে সেই অভিনেতাকে আমরা হাজির করছি, তবে তার নামটি আগেই প্রকাশ করছি না আমরা। এটা চমক হিসেবে থাকবে।’

ওয়ার্নার ব্রাদার্সের সিনেমা ‘বার্বি’ পরিচালনা করেছেন গ্রেটা গেরউইগ। আইকনিক ডল স্টোরি ‘বার্বি’কে সিনেমায় রূপ দিতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে তাকে। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নির্মাতা বলেন, ‘ড্রিমহাউজের মতো করে আমরা আরেকটি দুনিয়া বার্বি ল্যান্ড তৈরি করতে চেয়েছি। শিশুতোষ ভাব নিয়ে আসার জন্য ঝামেলাও কম হয়নি। খুব উজ্জ্বল গোলাপি রঙ লেগেছে। সবকিছুতেই অনেক বেশি পরিমাণে গোলাপি রঙ লেগেছে। বার্বির এই গোলাপি দুনিয়া তৈরি করতে গিয়ে বাজারের সব গোলাপি রঙই শেষ হয়ে গিয়েছিল।’

ট্রেলারে দেখা যায়, বার্বি মার্গট রবি হঠাৎ বুঝতে পারেন তিনি হিল জুতা ফেলে এসেছেন পৃথিবীতে। সেই জুতা খুঁজতে তিনি পৃথিবীতে আসেন। সেখানে হলিউড তারকা রায়ান গসলিংকে সঙ্গে নিয়ে জুতা খুঁজতে গিয়ে পার্টিতে নাচ-গান এবং খেলাধুলা ও মারামারিতে জড়িয়ে যান তারা। এরপর তাদের মাঝে গড়ে ওঠে প্রেমের সম্পর্কও। এক ঝাঁক তারকাকে নিয়ে বিশ্বের সবচাইতে জনপ্রিয় পুতুলটি সিনেমার পর্দায় আসছে, যা নিয়ে ইন্টারনেট জগতে চলছে তুমুল আলোচনা। হলিউডের কোন কোন তারকাকে বার্বিতে দেখা যাবে, তা বলার চেয়ে সহজ হবে কে কে নেই, তা বলা। মার্গট রোবি ও রায়ান গসলিং তারা দু’জন বার্বি ও কেইন হিসেবে মূল চরিত্রে থাকবেন, কিন্তু এখানেই শেষ নয়; ফ্যাশন পুতুলের জগতে রয়েছে শত শত বার্বি। যেমন সিনেমায় মার্কিন পপ তারকা ডুয়া লিপা ‘মারমেইড বার্বি’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। নিকোলা কফলানকে ‘কূটনীতিক বার্বি’ চরিত্রে দেখা যাবে। আনা ক্রুজ কেইন আসবেন ‘বিচারপতি বার্বি’ হয়ে। এছাড়া ‘ইনসিকিউর’ খ্যাত ইসা রে অভিনয় করেছেন ‘প্রেসিডেন্ট বার্বি’র চরিত্রে। এমা ম্যাকিকে দেখা যাবে ‘পদার্থবিজ্ঞানে নোবেলজয়ী বার্বি’র চরিত্রে। সিনেমায় আরও দেখা যাবে এমারেল্ড ফেনেল, স্কট ইভান্স, কিংসলে বেন-আডির, কেইট ম্যাককিনন, মাইকেল সেরা,আমেরিকা ফেরেরা, কনর সুইনডেলসকে। আর ধারা বর্ণনা শোনা যাবে ডেম হেলেন মিরেনের কণ্ঠে। ‘সুইসাইড স্কোয়াড’, ‘আই, টনিয়া’ ও ‘ম্যারি কুইন অব স্কটস’ ছবিগুলো দেখে থাকলে হলিউড তারকা মার্গট রোবির অভিনয় নৈপুণ্য বোঝা যায়। এবার বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় বার্বি ডল চরিত্রে অভিনয় করলেন অস্ট্রেলিয়ান এই অভিনেত্রী। বার্বি ডল চরিত্রে অভিনয়কে আত্মবিশ্বাস, কৌতূহল ও আদান-প্রদান হিসেবে দেখছেন ২৮ বছর বয়সী মার্গট রোবি। তিনি বলেন, ‘এই চরিত্রে কাজ করতে পেরে আমি সম্মানিত। আমার বিশ্বাস, বিশ্বজুড়ে শিশু-কিশোরদের মধ্যে ভীষণভাবে ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারবো। ছোটদের প্রিন্সেস থেকে শুরু করে প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিজেকে কল্পনা করার অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে পুতুলটি।’ ওয়ার্নার ব্রাদার্সের মুখপাত্র টোবি এমারিচ বলেন, ‘বার্বিকে নতুন ও প্রাসঙ্গিকভাবে বড় পর্দায় তুলে ধরতে অস্কার মনোনীত মার্গট রোবি জুতসই প্রযোজক ও অভিনেত্রী।’

‘বার্বি’র ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ারের পর সিনেমাটির প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকলে। সিনেমা বিশ্লেষকরা বেশ প্রশংসার সুরেই নিজেদের মতামত জানাচ্ছেন বার্বিকে ঘিরে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বার্বির জন্য লিখছেন পজিটিভ রিভিউ। ভ্যারাইটির প্রতিবেদন অনুসারে, স্ক্রিনরান্ট লেখক জোসেফ ডেকেলমেয়ার মনে করেন যে সিনেমাটি মজার এবং স্মার্ট। তিনি লিখেছেন, “বার্বি আমাকে স্ক্রিনে ধরে রেখেছিল সর্বোত্তম উপায়ে। এটি মজার, দুর্দান্ত এবং খুব স্মার্ট। গ্রেটা গারউইগ দারুণ কাজ দেখিয়েছেন। মার্গট রবির অভিনয় দুর্দান্ত।”

এদিকে, ভ্যারাইটি ম্যাগাজিনের সোশ্যাল মিডিয়া সম্পাদক ক্যাটসি স্টেফান বিশ্বাস করেন, বার্বি পরিপূর্ণ একটি চলচ্চিত্র। তিনি লিখেছেন, “একটি বিস্ময়কর এবং মজার নারী হওয়ার অর্থ কি তা নিয়ে একটি সূক্ষ্ম ভাষ্য প্রদান করেছেন পরিচালক গ্রেটা গারউইগ। সিনেমার গোটা টিম দারুণ করেছে। বিশেষ করে মার্গট রবি এবং রায়ান গসলিং তাদের ভূমিকায় অনবদ্য। যেন এই ভূমিকায় অভিনয় করার জন্যই জন্মগ্রহণ করেছিলেন তারা!” জনপ্রিয় ওয়েবসাইট কোলাইডারের লেখক পেরি নেমিরফও ফ্যান্টাসি ড্রামা ফিল্মটি সম্পর্কে তার পর্যালোচনা শেয়ার করেছেন। তিনি লিখেছেন, “আমি বার্বি দেখেছি। অবিশ্বাস্য কারুকার্য! বিশেষ করে কস্টিউম এবং প্রোডাকশন ডিজাইন পরবর্তী স্তরের কাজ করেছে যা এই অনুভূতি তৈরি করেছে যে এরা সত্যিকারের বার্বি। তাদের স্বপ্নের ঘর এবং তাদের পৃথিবী একদম জীবন্ত মনে হয়েছে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *