বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৩Dedicate To Right News
Shadow

দীপ্ত টিভিতে ‘আগুন পাখি‘

Spread the love


দীপ্ত টিভিতে শুরু হতে যাচ্ছে কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হকের উপন্যাস অবলম্বনে ধারাবাহিক নাটক ‘আগুন পাখি‘। প্রচারিত হবে ১ আগস্ট সোমবার থেকে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা ৩০মিনিটে এবং পরদিন দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে। এই উপলক্ষ্যে ২৮ জুলাই বৃহস্পতিবার গুলশান অল কমিউনিটি ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন দীপ্ত টিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফুয়াদ চৌধুরী, এস জে মোশন পিকচার্সের স্বত্বাধিকারী কাজী সাইফুল ইসলাম, পরিচালক পারভেজ আমিন এবং অন্যান্য কলাকুশলী।
পারভেজ আমিনের পরিচালনায় নাটকটিতে অভিনয় করেছেন শহিদুজ্জামান সেলিম, গোলাম ফরিদা ছন্দা, আহছানুল হক মিনু, মৌটুসী বিশ্বাস, ইনতেখাব দিনার, আজাদ আবুল কালাম, শম্পা রেজা, নাজনিন হাসান চুমকী, বৈশাখী ও অন্যান্য অনেকে। এস জে মোশন পিকচার্সের প্রযোজনায় ধারাবাহিকটির লাইন প্রোডিউসার কিশোর খন্দকার।
আমেনা শৈশবে মাতৃহারা হয়, তখন থেকেই এক মাতৃমূর্তি। মা হারানোর পর কোলে তুলে নেয় ছোট ভাইকে। মায়ের মমতায় লালন করে তাকে। মাতৃবিয়োগের পরে বাবা দ্বিতীয়বার বিয়ে করবেন। অজানা আশঙ্কায় কাঁপে মেয়েটির বুক- কেমন হবে সৎ মা? সময়ের নিয়মে মেয়েটি তারুণ্য প্রাপ্ত হয় এবং নিজের ইচ্ছে অনিচ্ছের উর্ধে গিয়ে বিয়ের জন্য প্রস্তুত হয়। সে জানে না কেমন হবে সেই নতুন সংসার? এসে পৌঁছায় একান্নবর্তী সম্পন্ন শ্বশুড়বাড়িতে। এর মধ্যে ঘটে গেছে ইংরেজ সরকারের প্ররোচণায় অসফল বঙ্গভঙ্গের ঘটনা। সেই আঁচ কিছু এসেছে এদের জীবনে। কিন্তু ভাঙনকাল শুরু হয়নি। স্বাধীনতা সংগ্রামে যোগ দিতে গিয়ে মেয়েটির কিশোর বয়েসী প্রথম পুত্রসন্তান মৃত্যুবরণ করে। এই শোক নতুন মানুষ হিসেবে তৈরী করে আমাদের কাহিনীর নায়িকাকে। দেশ তথা পৃথিবীজুড়ে চলছে এক অশান্ত পরিম-ল। আমেনা স্বাক্ষী হয় দুই বিশ্বযুদ্ধের। তার আঁচ এসে লাগেনা সরাসরি কিন্তু বদলে যায় জীবনগুলো।
একান্নবর্তী পরিবারের মেজ বৌ কোথায় যেন নিজেকে তৈরী করে চলেছে একদিনের জন্য- যা তাকে বদলে দেবে- নিজের অজান্তেই এক অন্য মানুষকে সে নিজের মধ্যে খুঁজে পাবে। আঁকড়ে থাকবে নিজের দেশের মাটি- স্বামী, সন্তান, পরিজন সবার বিরুদ্ধে গিয়ে তার নিজস্ব জেহাদ সে একবারই ঘোষণা করবে। শেষ হবে তার পরিক্রমা।
আগুনপাখি সেই মেয়ের জীবনচরিত যার ছত্রে ছত্রে রয়েছে তার বড় হওয়া, আরও আরও বড় হওয়া। নিজেকে ছাপিয়ে যাওয়ার এক যাত্রা। মানবজীবনের এই আখ্যান দেশ কালের ব্যবধান ঘুচিয়ে সকল শ্রেণীর দর্শকের কাছে চিত্তাকর্ষক হয়ে উঠবে বৈচিত্রে ও স্বকীয়তায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *